22 সেদিনে চিঠিগুলো

শীর্ণময় বুকসেল্ফে ধুলায় মাখামাখিতে
হঠাৎ খুঁজে পেলাম চিঠিগুলো ।
স্পষ্ট দেখতে পাই এ সবে
অবহেলায় জমে থাকা বিবর্ণ স্মৃতি ।
সেসব চিঠির সেই চমৎকার কথাগুলো
ভাবাভাবির শেষে
একটা সময়ে দীর্ঘশ্বাসে এসে গড়ায় ।
হঠাৎ অবেলা করে
ঝমঝম বৃষ্টি নামে ।
সেদিনের লাবণ্যের চলে যাওয়ার পথে
ঠিক এভাবে বৃষ্টি নেমেছিল ।
আজ বৃষ্টিতে অনেকটা ভিজে যাই গোপনে,
সেইসাথে ভিজতে থাকে চোখের পাতাগুলো ।
আমার পাগলামী দেখে চিঠিগুলো
উপহাসের হাসিতে মাটিতে গড়াগড়ি দেয় ।
পলকহীন চোখের
সবগুলো অশ্রু আকস্মিক বরষায় মিলিয়ে যাওয়া
মুহূর্তটুকু কেউ দেখে না,
এমনকি সেই অষ্টাদশী যৌবনার
কোন পঞ্চ ইন্দ্রিয়ও টের পায় না ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *